ঢাকাশনিবার , ৪ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবীগঞ্জে রতনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

গোবিন্দ দাশ
জুন ৪, ২০২২ ১০:৩৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের রতনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানীর বিরোদ্ধে স্কুল সময়মত না আসা স্কুলের গাছ,রড,আসবাপত্র ক্রয় সার্টিফিকেট বানিজ্যসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠছে।

সরেজমিনে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে স্কুলে গিয়ে পাওয়া যায়নি তাকে। স্কুলটি তালাবদ্ধ পাওয়া যায়। স্কুল ছাত্র-ছাত্রী ও গ্রামবাসী সূত্রে জানাযায়, রতনপুর,সুলতানপুর গ্রামের ছাত্র-ছাত্রীরা রতনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেন। কমলমতি শিশুরা সকালে স্কুলে গেলেও শিক্ষকরা তাদের ক্লাস না করিয়ে আড্ডায় মেতে থাকেন।

প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানী নিয়মত স্কুলে আসেন না । তিনি স্কুল চলাকালীন সময়ে শহরের রাজা কমপ্লেক্সে তার মালিকানা মাষ্টার ভেরাইটিজ স্টোরে বসে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বসে ব্যবসা করেন। স্কুলে ৩/৪দিন পর একদিন গিয়ে তিনি স্কুলে শিক্ষকদের সাথে কথা বলে হাজিরা দিয়ে চলে আসেন। পরে সহকারী শিক্ষক- শিক্ষিকারা ক্লাসে কি করেন তা আর তিনি খোঁজ খবর রাখেন না।

সরকারী বিভিন্ন বরাদ্ধ কমিটির সদস্যদের কোন আলাপ আলোচানা ছাড়াই তিনি তার ইচ্ছামত নয় ছয় করেন। প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানী সমাপনী পরীক্ষাথীদের সাটিফিকেট দেয়ার সময় ১০০-১৫০ টাকা চার্জ হিসাবে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। তার স্কুলে অনুপস্থিতিতে বিভিন্ন অনিয়মও স্বেচ্ছাচারিতার কারনে এলাকার লোকজন তাদের সন্তানদের সরকারী স্কুলে না দিয়ে সুলতানপুরের এনজিও পরিচালিত ব্র্যাক স্কুল ও বাউসা মাদ্রার ল্যান্ড কেজি স্কুলে ভর্তি করান।

গ্রামবাসী আরো বলেন, স্কুলের অফিস রুমে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ কারো ছবি রাখেনি ওই প্রধান শিক্ষক। স্কুলের বই আসবাবপত্র, স্কুলের গাছ, স্কুলে রড কংক্রিটসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ক্রয় বিক্রয়ে একক সিদ্ধান্ত মোতাবেক করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানী বলেন, আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। গ্রামের কিছু সংখ্যক লোকজন আমাকে হেনেস্তা করার জন্য এমন মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে।এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাইফুল ইসলাম বলেন, রতনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিভিন্ন অনিয়মের খবর আমাদের উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা জানেন। উনার নির্দেশে আমি নিজেই স্কুল পরিদর্শনসহ অভিযোগের বিষয়ে খোজ খবর নিয়েছি। তদন্ত চলমান অভিযোগ প্রমানিত হলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Developed By The IT-Zone