ঢাকারবিবার , ২৯ মার্চ ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবীগঞ্জে একটি ব্রিজের জন্য আর কতো অপেক্ষা করতে হবে এলাকাবাসীদের

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
মার্চ ২৯, ২০২০ ৮:২০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোঃ তাজুল ইসলাম,নবীগঞ্জ থেকে  :  হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের অবহেলিত একটি জনপদের নাম। সদর ঘাট গ্রামের মধ্যবর্তী স্থানে ইসলামপুরে  বয়ে যাওয়া বিজনা নদীর উপর শত বছরের পুরানো ধারায় অব্যাহত রাখা বাঁশের সাঁকো। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের আশার বাণী শুনতে শুনতে নিরুপায় হয়ে প্রতিবছর নিজ উদ্যোগেই গ্রামের মানুষ মিলে চাঁদা তুলে পারাপারের উপযোগী হিসেবে নির্মাণ করা হয় বাঁশের সাঁকো। উক্ত এলাকায় কোনো মুমূর্ষু রোগীকে নদী পারাপার করতে করতে রোগীর অবস্থা আরোও সূচনীয় হয়ে যায়। যদিও অনেক আগ থেকেই স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আশার বাণী শুনিয়ে যাচ্ছেন বাস্তবে তার খেয়াল নিচ্ছেন না একেবারেই। উক্ত বাঁশের সাঁকো দিয়েই প্রতিদিন পারাপার হয় স্কুল-মাদ্রাসাগামী ও দিন মজুর হাজার শ্রমিক।
আর বর্ষাকাল আসলে নদীটি যখন পানিতে ভরপুর তখন উপজেলার বাসডর,তেরাপাশা,কালাভরপুর,বানুদেব,বালিদ্বারা সহ সদর ঘাটের দিন মজুর কৃষকদের নৌকা দিয়ে পারাপার হতে হয়। খাদ্যের যোগান দিতে কষ্ট বেশি হলে ও কৃষি নির্ভরশীল এই এলাকার মানুষ যাতায়াত করতে হয় গ্রামের পূর্বদিকে অবস্থিত বড় হাওরে।
এই নিয়ে অনেকবার মিডিয়া সংবাদ প্রচার করলে ও আমলে নিচ্ছেন না স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। ইসলামপুরে স্থানীয় জনগণ জানায়,উক্ত ব্রিজ আনুমানিক প্রস্থে ১২ ফুট এবং দৈর্ঘ্য প্রায় ১৫০০ শত ফুট, দেখার যেন কেউ নাই।
দেশ ডিজিটাল হচ্ছে আর ভাসছে উন্নয়নের জোয়ারে,কিন্তু আমাদের এই ব্রিজটা করে দেওয়ার মতো এদেশে যেন কেউ নেই! যেখানে দিনমুজুরেরা নিজের দিনের পরিশ্রম টা কে সেক্রিফাইজ করে অনেক দিন যাবত কাজ করে অনেক গভীর রাস্তাগুলা ভরাট করতেছে অথচ সরকারের কোন প্রদক্ষেপ নেই। তাই এলাকাবাসীর দাবী অনতিবিলম্বে মাননীয় সাংসদের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকার উক্ত ব্রিজের প্রতি খেয়াল করে এলাকাবাসীকে কৃতার্থ করবেন।

Developed By The IT-Zone