ঢাকারবিবার , ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ঝুকিঁপূর্ণ শুটকি ব্রিজ নিয়ে আতংকে ভাটির জনপথ

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯ ৩:৩০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মো. আশিকুল ইসলাম,বানিয়াচং থেকে :  বানিয়াচং-হবিগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের শুটকি নদীর ওপর নির্মিত সেতুটি অনেকদিন যাবত ঝুকিঁতে রয়েছে। অধিক ঝুকিঁপূর্ণ হওয়ায় যে কোন সময় ধসে যেতে পারে দীর্ঘ বেইলী ব্রিজটি। ভয়াবহ দুর্ঘটনায় ঘটতে পারে ব্যাপক প্রানহানী। কিছু দিন পর পর মেরামত করলেও যানবাহন চলাচলের উপযোগী করতে পারেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সড়ক ও জনপথ বিভাগ ৫ টনের অধিক ভারী যানবাহন চলাচলে নিষেধ জানিয়ে ব্রিজের দুপাশে সাইন বোর্ড টানিয়ে রেখেছে। বিকল্প পথ না থাকায় চালকরা নিষেধ অমান্য করে অধিক ভারী মালবাহী যান চলাচল করতে দেখা যায়। ভাটি এলাকার আঞ্চলিক এ মহাসড়ক দিয়ে হবিগঞ্জ-সুনামগঞ্জ-কিশোরগঞ্জ জেলার ৬/৭ টি উপজেলার কয়েক লাখ লোক প্রতিদিন যাতায়াত করে থাকে। সেতুটি ভেঙ্গে পড়লে যোগাযোগ ব্যবস্থায় চরম বিপর্যয় দেখা দিবে। ফলে অসহনীয় দুর্ভোগের শিকার হবে ভাটি অঞ্চলের মানুষ।

dav

সরেজমিনে দেখা যায়, প্রায় ২শ ফুট দীর্ঘের সুটকি ব্রিজের ওপর কোন গাড়ি ওঠলেই পুরো ব্রিজ থরথর করে কেঁপে উঠে। স্ল্যাবগুলো ক্ষয়ে ছিদ্র হয়ে গেছে। স্ল্যাবের বড় ফাকাগুলো পিচ, কংক্রিট ও বালি দিয়ে সাময়িক সচল রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছে কর্তপক্ষ। অনেক স্থানে নাট-বল্টু না থাকায় বিকট শব্দ হয়।

চালকরা জানায়, ঝুকিপুর্ণ শুটকি ব্রিজে ভাঙ্গা-গড়ার খেলা চলছে। সেতুটি আর মেরামতের সুযোগ নেই। যে কোন সময় বড় ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। ঝুকিঁপূর্ণ হওয়াতে আমাদের আতংক নিয়ে গাড়ি চালাতে হয়। কর্তৃপক্ষ জোড়াতালি দিয়ে ব্রিজ সচল রাখতে কয়েক মাস পর পর মাইকিং করে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রেখে মেরামত করে। এ সময় হাজার হাজার পথযাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়।

 

সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী জ্যোতিষ গোস্বামী জানান, ব্রিজ ঝুকিঁপূর্ণ হওয়ায় ১৫ দিন পর পর নিয়মিত মেরামত করা হচ্ছে। ডিজাইনসহ নতুন ব্রিজ নির্মানের জন্য চাহিদা জানিয়ে প্রস্তাব পাঠিয়েছি। ইতিমধ্যে মাটিও পরীক্ষা করা হয়েছে। আশা করি কিছুদিনের মধ্যেই নতুন ব্রিজ নির্মানের বরাদ্দ

Developed By The IT-Zone