ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১ সেপ্টেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটে শ্রেণী কক্ষের অভাবে ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান

এফ এম খন্দকার মায়া
সেপ্টেম্বর ১, ২০২২ ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার সাটিয়াজুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে শ্রেনী কক্ষের অভাবে হাজারো শিক্ষার্থী ভুক্তভোগী ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান।

উপজেলার ৮নং সাটিয়াজুরী ইউনিয়ন পরিষদের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাটিয়াজুরী উচ্চ বিদ্যালয়।আসেপাশে প্রায় ১২শ’র ও বেশি শিক্ষার্থীদের একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি।

বিগত ২০১৯ সালের শুরুর দিকে স্কুল টিতে বহুতল ভবন নির্মাণে পুরাতন শ্রেনী কক্ষসহ একমাত্র লাইব্রেরি কাম কম্পিউটার রুম ভেঙে নতুন ভবন বৃত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন চুনারুঘাট মাধবপুর আসনের সাংসদ ও বাংলাদেশ সরকারের বেসামরিক বিমান পর্যটন ও পরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলী এমপি।

সেই থেকে চলমান সংকট শ্রেনী কক্ষ নিয়ে হযবরল ভাবে শিক্ষার্থীদের পাঠদান চালিয়ে আসছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। যার ফলে নিয়মিত ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান কার্যক্রম ।

জানা যায়,২ কোটি ৭৩ লক্ষ টাকা ব্যয় উক্ত ভবন টি নির্মাণে কাজ পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান শাহীন ট্রেডার্স। যা ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে হস্তান্তর করার কথা থাকলেও আজ অবধি কাজ অসম্পন্ন করে লাপাত্তা হয়ে আছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি।

উক্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের এমন গুরুত্বহীন ও হযবরল অবস্থা দেখে স্কুল কর্তৃৃপক্ষ বরাবর যোগাযোগসহ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলী এমপির স্বরনাপন্ন হলেও আজ অবধি কাজ বন্ধ অবস্থায় পরিত্যক্ত ভাবে পরে আছে ভবনটি। যা হাজারো শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি অভিভাবক ও জনমনে ক্ষোভ গণমাধ্যমে নিন্দার ঝড় বইছে।

এ বিষয়ে সাটিয়াজুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদ মাস্টার সাথে যোগাযোগ করলে,তিনি আমার হবিগঞ্জ প্রতিনিধি কে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা বারবার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে ব্যর্থ।

তারা এ বিষয়ে কোন কর্নপাত করেনি। বরং ইদানীং নাম্বারে কল দিলে কেটে দেন,নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়। এ দিকে হাজারো শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অষ্টম, নবম,দশম শ্রেনীর নিয়মিত ক্লাসের পুরাই ব্যাঘাত ঘটছে।

সাথে লাইব্রেরি ভবন কক্ষ না থাকায় ছাত্রছাত্রীদের পরতে হচ্ছে মহা বিড়ম্বনায়।আমরা অতি শিঘ্রই ভবনটি হস্তান্তর রুপে ফিরে পেতে চাই।

এ বিষয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান শাহিন ট্রেডার্স এর কর্ণধার  শাহিনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি কল রিসিভ করে বৈষয়িক করোনাসহ না সমস্যার কথা তুলে ধরে সময় ক্ষেপণের কথা স্বীকার করেন। এবং জানান,শীঘ্রই কাজ পুনরায় চাল করে হস্তান্তর করার চেষ্টা করবো।

Developed By The IT-Zone