ঢাকাশনিবার , ৬ জুন ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটে রেমা-কালেঙ্গা বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যের রাস্তার বেহাল দশা,দেখার কেউ নেই।

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
জুন ৬, ২০২০ ৪:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শুভ মিয়া চুনারুঘাট :  হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে বাংলাদেশেরব সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক পাহাড়ি বনাঞ্চল রেমা-কালেঙ্গা বণ্যপ্রাণী অভয়ারণ্য অবস্থিত। সুন্দরবনের পরে দ্বিতীয় বৃহত্তম প্রাকৃতিক বন হিসেবে পরিচিত এটি। পর্যটন এলাকা হিসেবে ইতিমধ্যেই সবার কাছে পরিচিত হয়ে উঠেছে। প্রতিবছর সারাদেশ এমনকি বিদেশ থেকে শত শত পর্যটক আসেন এর সৌন্দর্য উপভোগ করতে।

তবে চুনারুঘাট উপজেলা সদর থেকে রেমা-কালেঙ্গা যাওয়ার রাস্তা অযত্নে অবহেলায় পরে আছে। উপজেলা সদর থেকে রেমা-কালেঙ্গার দূরত্ব প্রায় ১৩ কিলোমিটার। পর্যটন এলাকার রাস্তা হলেও বেহাল দশায় পরে আছে এটি। একটু বৃষ্টি হলেই হাঁটু সমান কাদা জমে যায় রাস্তায়। গাড়ি তো দূরে থাক হেঁটে যাওয়াই দুর্বিষহ অবস্থা হয়েছে।

চুনারুঘাট-মাধবপুর (হবিগঞ্জ -৪) আসনটির সংসদ সদস্য বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মোঃ মাহবুব আলী। পর্যটন মন্ত্রীর এই পর্যটন এলাকার রাস্তার বেহাল দশায় ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন অনেকেই। মাননীয় মন্ত্রীর কাছে রাস্তাটির সংস্কারের জন্য এলাকাবাসী অনুরোধ জানিয়েছেন।

রেমা-কালেঙ্গা বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যের ইকো গাইড ফয়জুল্লাহ নোমান বলেন, ‘উন্নয়নের নামে যে হাজার হাজার কোটি টাকা বাজেট হয় তা কোথায় যায়,কোন খাতে ব্যায় হয়?যা কোন সাধারন জনতা জানে না। কোন সাধারনের জানার ইচ্ছাও নাই। শুধু উন্নয়ন চায়।
আমরা বছরের পর বছর এভাবেই কষ্ট করছি,যা আমাদের কোন চৌকস ব্যাক্তিরা দেখেন না কারন এখন আর মধু ভাংগার সিজন নয় সেটা চলে গেছে তিন বছর আগে আবার আসবেন দুই বছর পর তখন লম্বা কথায় আমরা হাত তালি দিয়ে হাতে ঠোসা ফেলে দিব। আহা,,,এভাবে আর কত??’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা একটি পর্যটন এলাকা,আবার সৌভাগ্যক্রমে পর্যটন প্রতিমন্ত্রী পেয়েছি আমরা আমাদের এই চুনারুঘাট মাধবপুর ৪ আসনে,কিন্তু দুঃখের বিষয় এখনো আমাদের মন্ত্রী মহোদয়ের সুদৃষ্টি পড়ল না আমাদের এই দুঃখ লাঘবের উপর। আমি মাননীয় মন্ত্রী এবং উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয়ের কাছে অনুরোধ জানাই এই রাস্তায় যে সুদৃষ্টি দেন।’

Developed By The IT-Zone