ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৩ এপ্রিল ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটের ময়না মিয়া এখনো সরকারি কোনো সহায়তা পাননি

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
এপ্রিল ২৩, ২০২০ ৪:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোহাম্মদ হুমায়ূন, চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ  ময়না মিয়া চুনারুঘাট উপজেলার ১০ নং মিরাশী ইউপির ৯ নং ওয়ার্ডের রাখী গ্রামের বাসিন্দা। পরিবারে রয়েছে স্ত্রী ও তিন ককন্যাসহ ৫ সদস্য। পেশায় একজন নারিকেল গাছ পরিষ্কারক। বর্তমানে মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে সারাবিশ্ব তথা বাংলাদেশের সকল এলাকার মানুষ গৃহবন্দী নেই কোনো কাজ । ফলে এলাকার হতদরিদ্ররা পাচ্চেন কিছু না কিছু সহায়তা। ঠিক তখনই ময়না মিয়া কাজের সন্ধানে পায়ে হেটে চলে আসেন প্রায় ২০/২৫ কিলোমিটার দূর ১ নং গাজীপুর ইউপির ৮নং ওয়ার্ডের ইকরতলী গ্রামে।
প্রায় চার দশক যাবৎ তিনি চুনারুঘাট উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের নাম মাত্র প্রারিশ্রমিক দ্বারা নারিকেল গাছ পরিক্ষার করার কাজে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন এই ময়না মিয়া । মহামারী করোনা পরিস্থিতির সরকারি স্বাস্থ্য বিধি-নিষেধ সম্পর্কে আলোচনা করলে তিনি হাউমাউ করে কান্নাজড়িত  কণ্ঠে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ’কে বলেন ‘কিতা করতাম বাবা এতদিন ধইরা জানের ডরেতো ঘরেই আছলাম। ঘরে যা আছিল সবইতো শেষ এখন কিতা করতাম। কিতা খাইতাম। সরকারি কোন পুটলাতো পাইলাম না। তাই পেটের দায়ে তোমরার গ্রামে আইলাম কাজ করার লাইগ্যা।”

ছবি : নারিকেল গাছ পরিস্কারক ময়না মিয়া কোনো ধরণের সহায়তা পাননি আজ পর্যন্ত

এমতাবস্থায় তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করে বলেন, যদি সরকারি ত্রাণ পাই তাহলে কখনো আর কাজে বের হবনা। সরকারী স্বাস্থ্য বিধি-নিষধ মেনে ঘরেই থাকব। খোঁজ নিলে দেখা যাবে এমন হাজারও ময়না মিয়া এখনো সরকারি কোন ত্রাণের ছোঁয়া লাগেনি তাদের পেটের ক্ষুধা  নিবারনে।–

Developed By The IT-Zone