ঢাকাসোমবার , ৯ মার্চ ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটের বিয়ের প্রলোভনে কিশোরী ধর্ষণ : রফাদফার চেষ্টা

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
মার্চ ৯, ২০২০ ৩:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 স্টাফ রিপোর্টার : চুনারুঘাট উপজেলার মিরাশি ইউনিয়নের বড়াব্দা গ্রামের দিন মজুরের কিশোরী মেয়েকে বিয়ের প্রলোভনে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে আসছে একই গ্রামের ইদ্রিস মিয়ার কুলাঙ্গার পুত্র আসাদ মিয়া। ধর্ষিতা ওই কিশোরী নালমুখ ছাবিহা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, ধর্ষণকারীর পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় ধর্ষণের মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে উঠেপড়ে লেগেছে একদল সুবিধাভোগী গ্রাম্য মাতব্বর। তারা ১০-১৫ হাজার টাকার বিনিময়ে ঘটনার রফাদফা করার পায়তারা করছে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

ধর্ষণকারী আসাদ মিয়া

জানা যায়, আসাদ মিয়া কিছুদিন আগে ওই দরিদ্র কিশোরীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। তারপর বিয়ের প্রলোভন দিয়ে অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হওয়ার জন্য বাধ্য করে। গত ৫মার্চ লম্পট আসাদ মিয়া ওই কিশোরীর বাড়িতে যায় ও অসামাজিক কার্যকলাপ করতে বলে। কিন্তু কিশোরী রাজি না হলে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। কিশোরীর মা বিষয়টা আঁচ করতে পেরে চিৎকার দেন। তার সুর-চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে আসাদ মিয়াকে আটক করেন। পরে ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার মানিক মিয়াকে ব্যাপারটি জানানো হয়।
এদিকে লম্পট আসাদকে আটক করা হয়েছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে তার ভাই ও আত্মীয় স্বজনরা দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে আটককৃত আসাদকে নিয়ে যায়। পরে এব্যাপারে গ্রাম্য শালিস বসানো হয়। শালিসে ঘটনাটিকে ধামাচাপা দিতে প্রয়াস চালান কথিত মাতব্বররা। তারা শেষ পর্যন্ত ঘটনাটিকে অন্যদিকে প্রবাহিত করতে না পেরে তাদের বিয়ে দেবে এমন একটা মিথ্যা আশ্বাস দেন। কিন্তু রায়টি আশার বাণী হয়েই রয়ে যায়। বর্তমান ও অদূর ভবিষ্যতে এ আশার বাণীর কোনো প্রতিফলন ঘটবে কি-না, তা নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন ওই কিশোরীর দরিদ্র পরিবার।
অন্যদিকে কিশোরীর নিরীহ ও সহজ-সরল বাবা মাতব্বরদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। মামলায় না জড়ানোর জন্য তাকে বিভিন্নভাবে হুমকিও প্রদান করা হচ্ছে। এ অবস্থায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন পরিবারটি।
এ ব্যাপারে বর্তমান মেম্বার মানিক মিয়ার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ঘটনাটি সত্য। তবে শালিসের মাধ্যমে একটা মিটমাটের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাজমুল হক জানান, এ বিষয়ে আমরা অবগত নই। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে চুনারুঘাট-থানা পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।

Developed By The IT-Zone