ঢাকারবিবার , ২৬ এপ্রিল ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটের ডুলনা ভাঙ্গার বনে আজও নির্মাণ হয়নি রবিউল সেতু

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
এপ্রিল ২৬, ২০২০ ১:১২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোহাম্মদ হুমায়ূন, চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ  চুনারুঘাট উপজেলার ১নং গাজীপুর ইউপির  ৮নং ওয়ার্ডের পশ্চিম ডুলনা গ্রামের (ভাঙ্গার বন) রবিউল সেতুটি আজও নির্মাণ না হওয়ায় বিপাকে অত্র এলাকার ছাত্রছাত্রী ও এলাকাবাসী। ঐ রাস্তা দিয়ে হাজ্বী সুরত আলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,চন্দ্র মল্লিকা উচ্চ বিদ্যালয়,আমুরোড উচ্চ বিদ্যালয়, রাজার বাজার সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, আমুরোড বাজার,হাপ্টারহাওর,নালুয়া চাবাগানের পূর্বটিলাসহ প্রায় ৪ শতাধিক ছাত্রছাত্রী, যাতায়াত করে।এছাড়াও অত্র এলাকার বিভিন্ন ব্যবসায়ী,চুনারুঘাট উপজেলা-মুখী লোকজনও যাতায়াত করেন। সেতুটি নির্মাণ না হওয়ায় বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে  ছাত্রছাত্রীরা ও গ্রামের লোকজনের যাওয়া আসা খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।
যুগযুগ ধরে জনপ্রতিনিধিরা নির্বাচন এলেই এই সেতুটি নির্মাণের আশ্বাস দিয়ে ভোট চেয়ে নির্বাচনী ওয়াদা প্রদান করেন।অতঃপর নির্বাচনের পর আর তাদের দেখা মিলছেনা।তাই এলাকাবাসী মনের মাঝে প্রচন্ড ক্ষোভ নিয়ে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ’কে বলেন-”কিতা কইতাম বাবা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা হইলেন বসন্তের কোকিল।আর আমরা হইলাম তাদের হাতের পুতুল পাঁচ পর পর আইয়্যা আমরারে সেতু বানানোর লোভ দেখাইয়া ভোট নিয়া আর খবর রাখইন না।”

ছবি : ভেঙ্গে যাওয়া কাঠের সেতুটি দ্রুত সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর

জানা যায় গ্রামবাসীদের তৈরী করা বাঁশের সাঁকো ২০১৭ সালের জুলাই মাসে বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়ায় সাঁকোর নিচে এক বিরাট গর্ত বা ডোবা তৈরী হয়।সেই ডোবাতেই  হাজ্বী সুরত আলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র  মোঃ রবিউল ইসলাম বিদ্যালয় হতে  ফেরার পথে প্রায় ১ ঘটিকার সময় ডোবার একপাশ দিয়ে হেঁটে পার হওয়ার সময় স্রোতেরটানে ডোবায় পড়ে ডুবে যায়।তখন সাথে থাকা অন্য ছাত্র চিৎকার দিলে গ্রামের লোকজন এসে জড়ো হতে থাকে।অতঃপর স্থানীয় লোকজন জাল দিয়ে বহু খুঁজাখুঁজি করেও রবিউলকে ডোবাতে খুঁজে না পেয়ে অবশেষে সিলেট হতে ডুবুরি এনে প্রায় সন্ধ্যার দিকে রবিউলের লাশ উদ্ধার করা হয়।
সর্বশেষে সামাজিক যোগাযোগের  মাধ্যমের রবিউলকে নিয়ে এক  করুণ স্ট্যাটাস দেখে সময়ের আলোচিত মানব কল্যাণে নিয়োজিত বাংলাদেশ অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন তাৎখনিকভাবে এলাকাবাসীদের নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে একটি কাঁঠের সেতু নির্মাণ করে এর নামকরণ করেন রবিউল সেতু। এবং তৎকালীন সময় সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন উক্ত রবিউল সেতু দ্রুত নির্মাণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য বিডি ভয়েজ ২৪. কমে একটি সাক্ষাতকারের মাধ্যমে আবেদন জানান। কিন্তু আজও সেতুটি নির্মাণ করা হয়নি।
এখনো বর্ষামৌসুম এলেই রবিউলের করুণ পরিণতির কথা ভেবে এলাকাবাসী কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের মাঝে আতংক বিরাজ করে। তবে বর্তমানে উক্ত কাঠের তৈরী ”রবিউল সেতু” আস্তে আস্তে ভেঙ্গে পড়েছে। তাই রবিউলের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও এলাকার জনজীবনের চলাচল সুগম করার লক্ষ্যে রবিউল সেতু’টি নির্মাণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী ও ছাত্রছাত্রীরা।

Developed By The IT-Zone