ঢাকাবুধবার , ১৭ আগস্ট ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চা শ্রমিকদের ৩শ টাকা মজুরির দাবি মেনে নেয়ার আহবান বাসদ মার্কসবাদীর

ইমদাদুল হোসেন খান
আগস্ট ১৭, ২০২২ ৭:১১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

হবিগঞ্জের চা-বাগানগুলোতে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ (মার্কসবাদী) ও বাংলাদেশ চা-শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত হয়ে চা-শ্রমিকদের আন্দোলনে সংহতি জানিয়েছেন।

বুধবার (১৭ আগস্ট) লস্করপুর ভ্যালীর চান্দপুর, বেগমখান ও লস্করপুর চা-বাগানে উপস্থিত হয়ে সংহতি জানান বাংলাদেশ চা শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সদস্য শফিকুল ইসলামসহ বাসদ (মার্কসবাদী) চুনারুঘাট উপজেলার সমন্বয়ক এম এ মালেক ও সদস্য ওবায়দুল হক চৌধুরী সেলিম।

এসময় চান্দপুর চা-বাগানে উপস্থিত ছিলেন পঞ্চায়েত সভাপতি সাধন সাঁওতাল, শ্রমিক নেত্রী সন্ধ্যা রাণী ভৌমিক, খাইরুন আক্তার, শ্যামল গোয়ালাসহ আন্দোলনকারী শ্রমিকরা।

বেগমখান চা-বাগানে উপস্থিত ছিলেন পঞ্চায়েত সভাপতি চন্দন কর্মকার, সাবেক ইউপি সদস্য লক্ষিচরণ বাকতি, পঞ্চায়েত সাধারণ সম্পাদক প্রণয় বাকতি, বুদ্ধেশ্বর রাজবংসীসহ আন্দোলনকারী শ্রমিকরা।

চা-শ্রমিকদের আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে বাসদ (মার্কসবাদী) ও চা-শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান বাজার মূল্য অনুযায়ী দৈনিক মজুরী ৫০০ টাকার কমে একটা পরিবার চলতে পারে না। তার পরও চা-শ্রমিক ইউনিয়ন সার্বিক দিক বিবেচনা করে দৈনিক মজুরী ৩০০ টাকা দাবী করেছেন। যা বাস্তবায়ন করা অসম্ভব নয়।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ২০ মাস অতিক্রম করার পরও ২০২১/২০২২ সালের চুক্তির জন্য আন্দোলন করতে হচ্ছে। স্থায়ী শ্রমিকরা নতুন মজুরির বকেয়া বিল পেলেও অস্থায়ী শ্রমিকরা সমান কাজ করার পরও কোনো বকেয়া বিল পায় না।

তাই ৩ মাস অধিক কর্মরত সকল অস্থায়ী শ্রমিকদের স্থায়ীকরণ করতে হবে। অস্থায়ী শ্রমিকদেরকেও স্থায়ী শ্রমিকদের সমপরিমান বকেয়া বিল দিতে হবে। শ্রমিকদের ভূমি অধিকার ও শিক্ষা-চিকিৎসার দাবী পূরণ করতে হবে।

Developed By The IT-Zone