ঢাকাশনিবার , ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আর কতো বয়স হলে বয়স্ক ভাতার কার্ড পাবো প্রশ্ন আয়েশা আক্তারের ?

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১ ৫:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

লিটন বিন ইসলাম, মাধবপুর প্রতিনিধি  :  জাতীয় পরিচয় পত্রের জন্ম সাল (১৯৪৫) অনুযায়ী বর্তমানে তাঁর বয়স ৭৬ বছর। স্থানীয় সূত্রে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ  জানতে পারে,২৫ বছর পূর্বে তাঁর স্বামী আফতাব আলীর মারা গেছেন। অথচ এখনও তার কপালে জুটেনি বয়স্ক ভাতা কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড। হ্যা” বলছি হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বহরা ইউনিয়নের ঘিলাতলী গ্রামের মৃত আফতাব আলীর স্ত্রী আয়েশা আক্তারের কথা।
বৃদ্ধা আয়েশা আক্তারের আকুতি বয়স তো প্রায় একশ এর কাছাকাছি বাঁচবো আর কয় দিন ৭৬ বয়সেও আমার কপালে জুটেনি বয়স্ক ভাতা কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড। আর কত বয়স হলে আমি বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড পাবো ? মরার আগে পাবো কি একটি বয়স্ক ভাতা কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড?
বয়স্ক ভাতা ও বিধবা ভাতা প্রদান সরকারের একটি ভাল উদ্যোগ। রাষ্ট্রীয় নিয়ম অনুযায়ী এই ভাতার একজন প্রকৃত দাবিদার জাতীয় পরিচয় পত্রের জন্ম সাল (১৯৪৫) অনুযায়ী বর্তমানে তাঁর বয়স ৭৬ বছর। স্বামী মারা যাওয়ার পর দুই মেয়ের বিয়ে হয়েছে । তারাও স্বামীর বাড়ি চলে গিয়েছেন।

ছবি : বৃদ্ধা আয়েশা আক্তার এখনো অপেক্ষায় আছেন কবে পাবেন বয়স্কভাতার কার্ড

আয়েশা আক্তারের কোন ছেলে সন্তান নাই। স্বামী মারা যাওয়ার পর মানুষের বাড়িতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করলেও বর্তমানে বয়সের ভারে কর্মশক্তি হারিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভিক্ষা করছেন। অনেকটা -অর্ধাহারে অনাহারে দিন কাটছে বৃদ্ধা আয়েশার।
প্রতিদিন অন্যের হাতের দিকে চেয়ে থাকতে হয় তাকে। কোন কোন দিন এক বেলা খাবার জুটলেও অন্য বেলায় না খেয়ে থাকতে হয় তার । ঈদের মতো বড় উৎসবে তার একটু খোঁজ নেয়ার কেউ নেই। অথচ এখনও তার কপালে জুটেনি বয়স্ক কিংবা বিধবা ভাতার কার্ড।
বৃদ্ধা আয়েশা আক্তার আক্ষেপ করে বলেন, আমার দেখা মতে কত চেয়ারম্যান পরিবর্তন হলো কিন্তু আমার দিকে কেউ চেয়ে দেখলোনা। তিনি আরও বলেন আগে আমি অফিসে গিয়েছি কিন্তু কাজ হয়নি তবে এখন আর তাদের কাছে যাই না।
এ ব্যাপারে বহরা ইউ/পি চেয়ারম্যান আরিফুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমার কাছে কেউ আসেনি। বয়স্ক ভাতা বা বিধবা ভাতার কার্ড পাওয়ার যোগ্য কেউ থাকে তাহলে চেষ্টা করবো দ্রুতই ব্যবস্থা করে দিতে।

Developed By The IT-Zone