ঢাকাবুধবার , ১৫ এপ্রিল ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আজমিরীগঞ্জে কালভার্ট যেন মরণফাঁদ : সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
এপ্রিল ১৫, ২০২০ ১২:১৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দিলোয়ার হেসেন, আজমিরীগঞ্জ   :   গত ২০১৯ সালের জুন মাসে পাহাড়পুর-মার্কুলি রাস্তায় পাহাড়পুর মহাশ্মশানঘাট সংলগ্ন নিকলীর বাঁধে  নানা অনিয়ম আর দুর্নীতির আশ্রয়ে দু’টি কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছিল। ঠিকাদার কর্তৃপক্ষকে এমন অনিয়ম আর ভেজালের ব্যাপারে পাহাড়পুর গ্রামের সচেতন ছাত্র সমাজসহ স্থানীয় জনগন বারবার সচেতন করেন। কিন্তু ঠিকাদার বলেন, সাধারণ জনতার কথায় কোনো কালভার্ট  কিংবা স্থাপনা নির্মাণ করা হবে না। আমরা নিয়ম মেনেই কাজ করে যাচ্ছি। আপনাদের কিছু করার থাকলে করুন। পরবর্তীতে জেলা প্রকৌশলী মহোদয় ও উপজেলা প্রকৌশলী মহোদয়ের নিকট মৌখিক অভিযোগ করেও অদ্যবধি পর্যন্ত এর কোনো সুরাহা হয়নি।

ছবি : অনিয়মতান্ত্রিকভাব গড়ে তোলা এই কালভার্টটি ভেঙ্গে নতুন করে করার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী

২-৩ মাস যেতে না যেতেই অনিয়মের হুংকারে গড়ে উঠা  কালভার্টটি জলধারায় ভেঙে যায়। ভেঙে যাওয়া ঝুঁকিপূর্ণ ও অনিয়তান্ত্রকভাবে গড়ে উঠা কালভার্টের সাথে সড়কের সংযোগ স্থাপন করতে মাটি ভরাটের কাজ সম্পন্ন করা হয়। যার দরুন ঝুঁকিপূর্ণ এই কালভার্টের উপর দিয়ে অনিরাপদের সহিত মানুষ ও যানচলাচল করে যাচ্ছে। সময়মতো এই ঝুঁকিপূর্ণ কালভার্টটি ভেঁঙে নতুন কালভার্ট নির্মাণ না করিলে জনমনে
অসন্তোষ ও যানচলাচলে নিরাপত্তার অভাব থেকেই যাবে।

ছবি : নির্মানে নিম্নমানের কাজ করায় ঝুঁপিপুর্ণ হয়ে উঠেছে নিকলী নামক স্থানে এই কালভার্ট

২নং বদলপুর ইউপি ছাত্রলীগের সভাপতি পংকজ কুমার দাস আমার হবিগঞ্জকে জানান,কালভার্ট তৈরি করার সময় আমি আমার ফেইসবুক আইডি থেকে এইসব অনিয়মের ব্যাপারে প্রতিবাদ করি। কিন্তু চুরে না শোনে ধর্মের কাহিনী্  অদৃশ্য শক্তির ক্ষমতা বলে কালভার্ট নির্মান করা হয় যা পরে ৩ মাসের মাথায় ভেঁঙ্গে যায়। স্থানীয় কয়েকজন লোকের সাথে আলাপকালে তারা জানান, আমরা খুব শীঘ্রই সঠিক নিয়মে এই কালভার্ট নির্মান করার দাবি জানিয়ে মাননীয় সাংসদ এডভোকেট আব্দুল মজিদ  খানের সুদৃষ্ঠি কামনা করব।

Developed By The IT-Zone