ঢাকাসোমবার , ৩০ মার্চ ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আজমিরীগঞ্জের শিবপাশা গ্রামে অসহায়দের পাশে শিক্ষক নন্দলাল

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
মার্চ ৩০, ২০২০ ১০:০৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জসিম উদ্দিনঃ করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকারি নির্দেশনার পর ২৫ মার্চ থেকে দেশের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। ২৬ মার্চ থেকে সরকারি-বেসরকারি সব অফিসও বন্ধ হয়ে গেছে। এরপর যোগাযোগ ব্যবস্থাও রয়েছে বিচ্ছিন্ন। একই সঙ্গে ঘর থেকে বের না হওয়ার নির্দেশনা রয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। তাই অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না মানুষ। আর্থিকভাবে সচ্ছলরা নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য মজুদ করলেও দিনমজুরদের সে সুযোগ নেই। তাই সারাদশের ন্যায় বিপাকে পড়েছেন হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জের শিবপাশা গ্রামের খেটে খাওয়া মানুষ। যদিও আর্থিকভাবে অনেক সচ্ছল পরিবার অসহায়দের পাশে দাড়াচ্ছেন। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকায় বিতরণ করছেন ত্রাণ। এই সংকটময় মুহুর্তে সোমবার (৩০মার্চ) দুপুরে আঠা, আলু, সাবান, মাস্কসহ হরেক রকমের দ্রব্যসামগ্রী বিতরণ করলেন স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নন্দলাল সরকার। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে তার এই মানবিক কর্মকান্ডের জন্য এলাকায় প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

শিবপশা গ্রামের বং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নন্দলাল সরকার আমার হবিগঞ্জকে বলেন, ভোগে সুখ নাই, ত্যাগেই প্রকৃত সুখ। আমি একজন সাধারণ শিক্ষক। নিজের যা আছে সেখান থেকেই কিছুটা হলেও দিতে পেরে খুব আনন্দবোধ করছি আমি। দেশের এই সংকটময় মুহুর্তে সমাজের বিত্তবানরা সবাই যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসলে দেশের অসহায়রা না খেয়ে থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, করোনা মোকাবিলায় সরকার দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা এখন বাড়িতে বসে আছি। কিন্তু সরকার আমাদের বেতন দিবে ঠিকই। তাই ভাবলাম নিজের বেতনের টাকা দিয়ে এই সময়টাতে অসহায়দের পাশে দাঁড়ানো উচিত।

 

Developed By The IT-Zone