ঢাকাশনিবার , ২৩ নভেম্বর ২০১৯
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অফিস না করেই বেতন নিচ্ছেন এক পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক

অনলাইন এডিটর
নভেম্বর ২৩, ২০১৯ ৮:১০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ছবিঃ পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক (এফপিআই) আনোয়ার সাদত এর ফাইল কপি।

রায়হান উদ্দিন সুমন, বানিয়াচং থেকে॥  বানিয়াচং উপজেলার ৮নং খাগাউড়া ইউনিয়নের পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক (এফপিআই) আনোয়ার সাদত এর বিরুদ্ধে মাসের পর মাস মাঠে কাজ না করেই সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতা নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এর ফলে এলাকার সাধারণ মানুষ সরকারি সেবাদান থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

জানা যায়,পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক আনোয়ার সাদত নানা অজুহাতে তার কর্মস্থলে না গিয়ে জেলা শহরে বসে প্রাত্যহিত কর্মকান্ড করে যাচ্ছেন বিগত ৬ মাস ধরে। চিকিৎসার নানা অজুহাত দেখিয়ে তিনি মাসের পর মাস তার দায়িত্ব থেকে দুরে রয়েছেন। পরিবার কল্যাণ সহকারিরা প্রতিমাসে মাঠের রিপোর্ট জেলা শহরের একটি ফার্মেসীতে এমনকি তার বাসায় পৌছে দেন বলে জানা গেছে। এতে গ্রামের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর লোকেরা পরিবার পরিকল্পনার কোনো ধারণাই পাচ্ছেনা। ওই এলাকার পরিবার কল্যাণ সহকারি এরশাদ জাহান জানান,আনোয়ার সাদত মাসের পর মাস মাঠে আসেন না। তার এই কাজগুলো আমাদেরই করতে হয়। কি করবো মাসিক রিপোর্ট জেলার একটি ঔষধের দোকানে বা তার নিজ বাসায় আমার পৌছে দিই।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,আনোয়ার সাদতের ভাই ডিসি অফিসে অফিস সহকারি হিসেবে কর্মরত আছেন। আর তার এই কাজে তিনি রাতের পর রাত ভাইকে সহায়তা করেন। ফলে আনোয়ার সাদত পরের দিন তার কর্মস্থলে না গিয়ে মোবাইল বন্ধ করে ঘুমিয়ে থাকেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে এফপিআই আনোয়ার সাদত জানান,আমি ঠিকমতো মাঠে যাই। আমার পারফরমেন্সও ভালো। তবে গত দুই মাস আমি অসুস্থ্য থাকায় যেতে পারিনি।

বিষয়টি নিয়ে বানিয়াচং থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) বাবুল চন্দ্র দেবের সাথে কথা হয়। তিনি এই প্রতিবেদককে জানান,আনোয়ার সাদতের কিছু গাফিলতি আছে সত্যি। তারপর সে বেশকিছু দিন অসুস্থ্যও ছিল তাই ফিল্ডে যেতে পারেনি। এখন ঠিকমতো কাজ করে কিনা খতিয়ে দেখবো।

Developed By The IT-Zone